কিভাবে প্রতিদিন কিছু আয় করতে পারি?

news pic

কিভাবে প্রতিদিন কিছু আয় করতে পারি? ভালো কোন কাজের অভিজ্ঞতা এবং শিক্ষাগত যোগ্যতা চাড়াই দৈনিক প্রায় ৩০০ টাকা উপার্জন করা সম্ভব। তবে এক্ষেত্রে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। কোন রকম লজ্জা রাখা যাবে না, সমাজের চোখে নিচু পর্যায়ের এমন কাজগুলো করতে হবে। বর্তমান সময়ে বাস্তব জীবনে নিম্নোক্ত কাজগুলো করে দৈনিক প্রায় ৩০০ টাকা পারিশ্রমিক পাওয়া সম্ভব। যেমনঃ

১. রাজমিস্ত্রি’র কাজঃ প্রথম অবস্থায় রাজমিস্ত্রী’দের সাহায্য কারি হিসেবে কাজ করতে হবে। বর্তমান সময়ে এ ধরনের প্রচুর কাজ পাওয়া যায়। এ ধরনের কাজ করলে দৈনিক তিনশত টাকা আয় হবে যখন কাজ ভালোমত করতে পারবে তখন আয়ের পরিমান ও বাড়বে।

২. টাইলস এর কাজঃ এই ধরনের কাজও ঠিক রাজমিস্ত্রী’দের কাজেরমত। ভিবিন্ন ভবনে যারা টাইলস এর কাজ করতেছে তাদের সাথে কথাবল্লে তারা কাজের ব্যবস্থা করে দিবে।

৩. রিক্সা বা ভ্যান চালানোঃ বর্তমানে বৈদ্যুতিক ব্যাটারির মাধ্যমে চলে এই ধরনের অটো রিক্সা বা ভ্যান ড্রাইবার দৈনিক ৩০০ টাকা অনায়াসে উপার্জন করে।

৪. ফসলের জমিতে কাজ করেঃ গ্রামের বেশিরভাগই কৃষক, জমিতে যখন কাজের পরিমান বেশি থাকে তখন তারা সাধারনত বাইরের লোক দিয়ে বাড়তি কাজ গুলো করিয়ে নেয়,তখন তারা দৈনিক মজুরি হিসেবে ২০০/৩০০/৪০০ টাকা মজুরি দিয়ে থাকে। এই ধরনের কাজ করে গ্রামের অনেক ফ্যামিলি তাদের জীবিকা নির্বাহ করে।

৫. কাঁচা সবজি বিক্রি করেঃ এই ব্যবসায়ে সামান্য কিছু টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। দিনের নির্দিষ্ট একটা সময় কাজ করে অনেকে ভালো মাপের উপার্জন করতেছে।

৬. চোট চা দোকান দিয়েঃ লক্ষ করলে দেখবেন শহর কিংবা গ্রামের পুত-পাতে অসংখ্য চা দোকান দেখা যায়, এই দোকানিদের উপার্জনও নেহায়েত কম নয়।

৭. বাসায় তৈরি ভিবিন্ন নাস্তা বিক্রি করেঃ দুপুর বেলা অফিস কিংবা স্কুলের সামনে এ ধরনের নাস্তার ব্যাপক চাহিদা লক্ষ করা যায়। সন্ধার সময় পাড়া-মহল্লায় এই নাস্তা বিক্রি করে উপার্জন সম্ভব।

৮. মাছ বিক্রি করেঃ ভোরবেলা আড়ৎ থেকে মাছ কিনে সকালে মানুষের বাড়ি-বাড়ি গিয়ে মাছ বিক্রি করে ভালো মাপের আয় করা সম্ভব।

৯. বাদাম,মুড়ি বিক্রি করেঃ রাস্তার পাশে,পার্কে বাদাম ও মুড়ি বিক্রি করে অনেকে দৈনিক তিনশত টাকা কিংবা এর বেশিও উপার্জন করতেছে।

আরো পড়ুনঃ ঘুমের ঔষুধের নাম কি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *